Logo

চট্রগ্রাম নগরীর ৪০নং ওয়ার্ড কাউন্সিলার প্রার্থী বারেকের বিরুদ্দে যৌন হয়রানির অভিযোগ

রিপোর্টার:
আপডেট : মঙ্গলবার, ৫ জানুয়ারি, ২০২১

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি: হিরো

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের উত্তর পতেঙ্গা ৪০ নং ওয়ার্ড মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদিকা নাসিমা বেগমকে রাস্তা থেকে ধরে নিয়ে জোর করে ছবি তুলে এবং মেসেঞ্জারে অপ্রীতিকর ছবি ও বিভিন্ন অশালীন উক্তি পাঠিয়ে ব্ল্যাকমেইলিং করা ছাড়াও গুরুতর যৌন হয়রানির অভিযোগ উঠেছে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের আসন্ন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত এক কাউন্সিলর প্রার্থী আব্দুল বারেকের বিরুদ্ধে। বিভিন্ন জনপ্রিয় পত্রিকাসমূহ ও গণমাধ্যমে তারে অপকর্মের বিরুদ্ধে খবর ছাপানো হয়েছে।অভিযোগ কারী নাসিমার ফেসবুক এবং মেসেন্জার চেক করে এ ব্যাপারে যথেষ্ট তথ্য পাওয়া গেছে।

নাসিমা আকতার অভিযোগ করে বলেন আওয়ামী লীগ নেতা আবদুল বারেক দীর্ঘদিন থেকে ফেসবুক মেসেঞ্জারে তাকে কুপ্রস্তাব দেওয়া ছাড়া অশালীন ছবি পাঠিয়ে উত্যক্ত করছেন।শুধু তাই নয় আমাকে জোর করে ছবি তুলে যৌন হয়রানির চেষ্টা করেছেন, শুধু আমি নয় অনেকেই তার লালসার শিকার হয়েছেন।আমাদের ওয়ার্ডের অনেক নেত্রী তার কুপ্রস্তাবের শিকার হয়েছেন এবং বেশ কয়েকজন তার বিরুদ্ধে কোর্টে জিডিও করেছেন।যদি আমি এসবের ব্যাপারে কাউকে বলি তাহলে আমাকে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে যাচ্ছেন এমনকি গত বৃহস্পতিবার আমার, আমার পরিবারের উপর অতর্কিত হামলা করেছে তার সন্ত্রাসী বাহিনী। এ ব্যাপারে থানায় আমার পরিবার অভিযোগ করেছে। এ ব্যাপারে আমি মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক ও মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসিনা মহিউদ্দিন কে জানিয়েছি। এবং কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগকেও জানিয়েছি এই অবস্থায় আমি আমার প্রাণ প্রিয় জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে তার বিচার চাইছি।
(বক্সপপ) অভিযোগকারী নাসিমা আক্তার

৪০নং উত্তর পতেঙ্গা ওয়ার্ডের দায়িত্বে থাকা ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আফরোজা খানম ও সাংগঠনিক সম্পাদক নিপা আক্তার পুষ্প অভিযোগ করে বলেন কাউন্সিলর প্রার্থী আব্দুল বারেক একজন নারী লোভী,শুধু নাছিমা নয় ৪০ নং উত্তর পতেঙ্গা ওয়ার্ডের দায়িত্বে থাকা অন্যান্য নারীনেত্রীরা অভিযোগ করে বলেন কাউন্সিলর প্রার্থী আব্দুল বারেক একজন নারী লোভী, নাসিমা নয় আরো অনেক নারী নেত্রী তার কুপ্রস্তাবের শিকার হয়ে তার বিরুদ্ধে কোর্টে জিডিও করেছে,অনেকে লজ্জায় মুখ খুলতে পারছেনা।এ ব্যাপারে আমরা মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসিনা মহিউদ্দিন এবং মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি সাধারণ সম্পাদকের দৃষ্টি গোচর করেছি। এবং কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগকে এ ব্যাপারে অবহিত করা হয়েছে।

নাসিমাকে যৌন হয়রানির করার ব্যাপারে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন চৌধুরী আজাদ এবং সাংগঠনিক সম্পাদক আলী আকবর চৌধুরী সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দের কাছে জানতে চাইলে তারাও ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন আওয়ামী লীগ মনোনীত কাউন্সিলর প্রার্থী আব্দুল বারেক মূলত আওয়ামী লীগের কেউ নয়, তিনি একজন খোলস পালটানো রাজনৈতিক। যখন যে দল ক্ষমতায় থাকে তখনই তার দলে ঢুকে পড়ে,প্রথমে তিনি জাতীয় পার্টি পরে বিএনপি এবং বর্তমানে আওয়ামী লীগ, টাকার দাপটে যা ইচ্ছে তাই করতে পারেন তিনি।

যার বিরুদ্ধে এত অভিযোগ তিনি হচ্ছেন ৪০ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের মনোনীত কাউন্সিলর পদপ্রার্থী আব্দুল বারেক, গণকন্ঠ প্রতিনিধি তার কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন আমার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা এবং বানোয়াট,তাদের স্বামী-স্ত্রীর বিচার করতে গিয়ে আমি পক্ষপাতিত্ব না করার কারণে আমার নামে কুৎসা রটাচ্ছে।এবং পরে থাকে ফোন করা হলে তার ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।

আসলে ব্যাপার কি, বিয়ে সংক্রান্ত ঝামেলা নাকি সর্ষের মধ্যে ভূত এব্যাপারে জানতে নাসিমার স্বামী আব্দুল ওয়াদুদের মুঠোফোনে ফোন করলে
তিনি জানান আব্দুল বারেক ভয়ঙ্কর একজন মিথ্যাবাদী,আমি চাকূরীর কারণে চাঁদপুরে থাকি সে সবসময় আমার স্ত্রীকে বিরক্ত করে একথা আমার স্ত্রী আমাকে অনেকবার বলেছেন আমাদের সংসারটা যেন ভেঙ্গে যায় আমার স্ত্রীকে ভাগিয়ে নিয়ে যাওয়ার পাঁয়তারা করছে সে এ ধরনের হেনস্তা করে আমার স্ত্রীকে। আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিচার প্রার্থনা করছি বক্তব্য।

ঘটনার ব্যাপারে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ, মহানগর আওয়ামী লীগ ও চট্টগ্রাম মহিলা আওয়ামী লীগের সেক্রেটারিকে জানানো হয়েছে বলে জানান নাসিমা, অভিযোগের ব্যাপারে চট্টগ্রাম মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসিনা মহিউদ্দিন এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান সুষ্ঠু তদন্ত করে এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়া। হবে

যেখানে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী, জাতীয় সংসদের স্পিকার সহ বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় নারীরাই বলিষ্ঠ নেতৃত্ব দিচ্ছে তারপরও যেন নারীরা নিরাপদ নয়।প্রতিনিয়ত ঘটছে যৌন কেলেঙ্কারির মতো ভয়ানক ঘটনা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর দেখুন